নভেম্বর / ২৬ / ২০২২ ০৯:৪২ অপরাহ্ন

জৈন্তাবার্তা ডেস্ক:

নভেম্বর / ০৪ / ২০২২
০২:৫১ অপরাহ্ন

আপডেট : নভেম্বর / ২৬ / ২০২২
০৯:৪২ অপরাহ্ন

জাকিরের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ তৃণমূল, কেন্দ্রে নালিশ

‘মাইম্যান’ তৈরির অভিযোগ



51

Shares

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে কেন্দ্রের কাছে নালিশ জানিয়েছেন তৃণমূলের ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সোমবার লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তারা। অধ্যাপক জাকিরের বিরুদ্ধে ওয়ার্ড কমিটি গঠনে অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা, স্বজনপ্রীতি, আত্মীয়-স্বজন ও বিএনপি-জামায়াত পরিবারের সদস্যদের পদায়নের অভিযোগ করেন তারা। কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা জাকিরের বিরুদ্ধে কমিটি গঠনের নামে ‘মাইম্যান’ তৈরিরও অভিযোগ করেন। জবাবে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ আগামী ৬ নভেম্বর মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখবেন বলে আশ্বস্থ করেন। তৃণমূল নেতাদের বক্তব্য শোনার পর বর্ধিত সভার আগে নতুন করে কোন ওয়ার্ড কমিটি গঠন না করতে কেন্দ্র থেকে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে সূত্র নিশ্চিত করেছে।

দলীয় সূত্র জানায়, গত সোমবার সিলেট মহানগরীর ৩, ৪, ৬ ও ২৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়। এসময় ওয়ার্ডের নেতারা কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে দেখা করে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেনের স্বেচ্ছাচারিতা ও অনিয়মের বিষয়গুলো তুলে ধরেন। এতে কেন্দ্রীয় নেতারাও ক্ষুব্ধ হন। অভিযোগকারী নেতাকর্মীদের কেন্দ্রীয় নেতারা জানান, আগামী ৬ নভেম্বর মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবীর নানক, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ ও সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন যোগ দেবেন। সভায় অংশ নেওয়ার আগে তারা তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সকল অভিযোগ আরেকবার শুনবেন। এরপর বর্ধিত সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবেন। সিলেটে দলকে আরও সুসংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ করতে যা যা করা প্রয়োজন সবই করা হবে বলে আশ্বস্থ করেন তারা।  

দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা বরাবরে প্রেরণ করা পৃথক লিখিত অভিযোগে ওয়ার্ড কমিটির নেতারা জানান, অধ্যাপক জাকির হোসেন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে দলের মধ্যে ঐক্যের পরিবর্তে বিভাজন তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। ওয়ার্ড কমিটিতে তিনি দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে নিজের খেয়ালখুশিমতো আত্মীয়-স্বজন ও বিএনপি-জামায়াতের পরিবারের সদস্যদের হাতে নেতৃত্ব তুলে দিচ্ছেন। কমিটি গঠনে তিনি কোন নিয়ম-কানুনের তোয়াক্কাই করছেন না।

৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি আতিকুর রব চৌধুরী জুয়েল স্বাক্ষরিত আবেদনে উল্লেখ করেন, তৃণমূলের নেতাকর্মীদের দাবি উপেক্ষা করে অধ্যাপক জাকির কাউন্সিল ছাড়াই তার ওয়ার্ডে কমিটি গঠন করেছেন। সবার মতামত উপেক্ষা করে তিনি কমিটিতে আবদুল হামিদ নামের একজনকে সভাপতি করেছেন। যিনি গেল সিটি নির্বাচনে বিএনপি নেতা কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীমের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ছিলেন। আর সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম মাসুদ হচ্ছেন জাকিরের ভাগ্নে। মাসুদের এক ভাই বিএনপি ও আরেক ভাই জামায়াত নেতা।

৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের পক্ষে অভিযোগ দিয়েছেন বর্তমান কমিটির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুস সালাম। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, তার ওয়ার্ডেও কাউন্সিল ছাড়া ‘মাইম্যান’ দিয়ে পকেট কমিটি করেছেন অধ্যাপক জাকির। কমিটিতে নিজের আত্মীয়কে সাধারণ সম্পাদক করেছেন তিনি।

জৈন্তাবার্তা ডেস্ক:

নভেম্বর / ০৪ / ২০২২
০২:৫১ অপরাহ্ন

আপডেট : নভেম্বর / ২৬ / ২০২২
০৯:৪২ অপরাহ্ন

রাজনীতি