ডিসেম্বর / ০১ / ২০২২ ০৯:০৮ পূর্বাহ্ন

জৈন্তাবার্তা ডেস্ক:

নভেম্বর / ২৩ / ২০২২
০৩:১৩ অপরাহ্ন

আপডেট : ডিসেম্বর / ০১ / ২০২২
০৯:০৮ পূর্বাহ্ন

নবীগঞ্জের সড়কটি দুই যুগেও সংস্কার হয়নি!



11

Shares

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি বাজার, আমকোনা, বেতাপুর ঈদগাহ থেকে ফরিদপুর ভায়া গোরারাই বাজার পর্যন্ত প্রায় পাঁচ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার হয়নি দুই যুগেও। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ২০টি গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার মানুষ।

তবে এলাকাবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে সড়কটির কিছু অংশ অস্থায়ীভাবে মেরামত করা হয়েছে।

 ২৬ বছরে দেশে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সরকার গঠন করলেও কেউ এ সড়কটি মেরামতের উদ্যোগ নেয়নি। সড়কটির কিছু অংশ পাকা ছিল, তবে গত দুই যুগে সেই অংশটিও পরিণত হয়েছে মেঠোপথে।

 স্থানীয়রা জানান, ১৯৯৬ সালে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক দেওয়ান ফরিদ গাজী হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে তাঁর মাধ্যমে আউশকান্দি বাজার, আমকোনা, বেতাপুর ঈদগাহ থেকে ফরিদপুর ভায়া গোরারাই বাজার সড়কটির প্রায় ১ কিলোমিটার অংশ পাকাকরণ হয়। এরপর প্রায় ২৬ বছর পার হয়ে গেলেও কোনো জনপ্রতিনিধি সড়কটি উন্নয়নের উদ্যোগ নেননি।

 দক্ষিণ দৌলতপুর গ্রামের ফারুক আহমদ বলেন, ‘জনপ্রতিনিধিরা এই সড়কটিকে ভোট আদায়ের কৌশল হিসেবে ধরে নিয়েছেন, ভোটের আগে ওয়াদা দিলেও নির্বাচিত হওয়ার পর কেউ আর সড়কটি মেরামত করেন না, এ নিয়ে এলাকাবাসী এখন আশাহত। ’

সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক হেলাল মিয়া জানান, সড়কটি এখন আর চলাচলের যোগ্য নেই। এটি গ্রামের মেঠোপথের মতো হয়ে গেছে। বৃষ্টি হলে কাঁদা আর শুকনোর দিনে খানাখন্দের ওপর দিয়ে দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়ে গাড়ি চালাতে হচ্ছে।

 আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান দিলওয়ার হোসেন বলেন, সড়কটি চলতি বছরের মধ্যে সংস্কার হবে বলে আশা নেই। কারণ নতুন টেন্ডারের তালিকায় এটি নেই।

 এ বিষয়ে হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ বলেন, এ সড়কটি সংস্কার করা আমার নির্বাচনী ওয়াদা। কিছুদিনের মধ্যেই টেন্ডার হবে। এরপর সড়কটি দ্রুত সংস্কার করা হবে।

 স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নবীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী সাব্বির আহমদ বলেন, সড়কটি বিশেষ প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যেই সংস্কার হবে বলে তিনি আশাবাদী।

জৈন্তাবার্তা ডেস্ক:

নভেম্বর / ২৩ / ২০২২
০৩:১৩ অপরাহ্ন

আপডেট : ডিসেম্বর / ০১ / ২০২২
০৯:০৮ পূর্বাহ্ন

হবিগঞ্জ