ফেব্রুয়ারী / ০৩ / ২০২৩ ০৫:৪২ পূর্বাহ্ন

শাহিদ হাতিমী

ডিসেম্বর / ০৪ / ২০২২
০৯:০৫ অপরাহ্ন

আপডেট : ফেব্রুয়ারী / ০৩ / ২০২৩
০৫:৪২ পূর্বাহ্ন

অনবদ্য এক দানশীল ব্যক্তিত্ব গফফার চৌধুরী খসরু ও প্রাসঙ্গিকতা

‘স্বদেশের দরদী চিন্তক’


আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু

91

Shares

কীর্তিমানের মৃত্য নেই বলে সমাজে বহুল প্রচারিত একটি বাক্য আছে। বাক্যটি সবার সাথে যায় না। কিন্তু কিছু মানুষের শানে বাক্যটির ব্যবহার যতোপযুক্ত। তেমনই এক ব্যক্তিত্ব, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কমিউনিটি নেতা, প্রবাসে স্বদেশের দরদী চিন্তক, রোটারিয়ান আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু। তিনি মিডিয়াবান্ধব একজন খ্যাতিমান শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবী। দেশ-বিদেশে শিক্ষার উন্নয়ন ও মানবসেবায় তাঁর নিরলস অবদান অপরিসীম। যখনই সময় পান ছুটে আসেন নিজ দেশে, নিজ জন্মভূমিতে। দেশের মানুষের পাশে দাড়ানোই তার জীবনের একমাত্র ব্রত হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনি। বিশষে করে জন্মস্থান সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার শিক্ষা, মানবতা ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে তাঁর অবদান অতুলনীয়।

১৯৬৮সালে সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত এলাকায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে তাঁর জন্ম। তার পিতা মরহুম ডা.আব্দুর রশিদ, মাতা- মরহুমা রাবিয়া খাতুনও ছিলেন শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবী। শিক্ষাজীবন শেষে আজ থেকে প্রায় ৩ যুগ আগে পাড়ি জমান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানেই স্থায়ী নিবাস গড়ে তুললেও নাড়ীর টানে ছুটে আসেন মাতৃভুমিতে। মাতৃভ’মির মানুষের জীবনযাত্রার উন্নয়কেই তিনি তার জীবনের উন্নয়ন ও ব্রত মনে করেন। তার আর্থিক অনুদানে উন্নতি লাভ করেছেন জৈন্তাপুরস্থ  ইমরান আহমেদ সরকারি মহিলা কলেজ, জৈন্তাপুর তৈয়ব আলী ডিগ্রি কলেজ, রমজান রূপজান বাগেরখাল একাডেমী (স্কুল এন্ড কলেজ) স্কুল শাখা, রমজান রূপজান বাগেরখাল একাডেমী (স্কুল এন্ড কলেজ) কলেজ শাখা, হযরত শাহজালাল ডিগ্রি কলেজ চিকনাগুল, সেন্ট্রোল জৈন্তা উচ্চ বিদ্যালয় দরবস্ত,সারিঘাট উচ্চ বিদ্যালয়,আমিনা হেলালি টেকনিক্যাল স্কুল,মাওলানা আব্দুল লতিফ জুলেখা গার্লস হাইস্কুল, হেমু তিনপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়,হরিপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, চারিকাটা আইডিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়,খাজার মোকাম উচ্চ বিদ্যালয়। সম্প্রতি তাঁর পক্ষ থেকে বিশেষ অনুদান পেয়েছে জৈন্তাপুর গার্লস হাইস্কুল,বাউরবাগ উচ্চ বিদ্যালয়, চারিকাটা উচ্চ বিদ্যালয়,মানিকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,পাকড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বিছনাটেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ফ্রেন্ডশিপ পাবলিক স্কুল ও সিকন্দর আলী মেমোরিয়াল কিন্ডারগার্টেন। শুধু স্কুল করেজৈর উন্নয়নে নয় মাদ্রাসা মসজিদ ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানেও রয়েছে তাঁর উল্লেখযোগ্য অবদান। 

তার বিশেষ অবদানে উন্নত মাদরাসাতুল উলূম হরিপুর বাজার, দারুল উলূম হেমু মাদরাসা, দারুল হাদিস দিনাতুল উলূম খরিলহাট মাদরাসা, দরবস্ত আল-মনসূর মাদরাসা, ইমদাদুল উলূম লামনীগ্রাম মাদরাসা, আশরাফুল উলূম নিজপাট মাদরাসা, জৈন্তা জামেয়া মহিলা মাদরাসা, নূরে মদিনা বিরাইমারা মাদরাসা, শাহজালাল (রহ.) লতিফিয়া মাদরাসা আসামপাড়া, মারকাজুল উলূম ডৌডিক মাদরাসা, ফাতিমাতুয যাহরা সারিঘাট মহিলা মাদরাসা, চারিকাটা থুবাং হামিদিয়া মাদরাসা, থুবাং হাজি গিয়াসউদ্দিন মহিলা মাদরাসা, মাদানিয়া বনপাড়া মাদরাসা, নয়াখেল হাফিযিয়া মাদরাসা, দারুল কুরআন আহমদপুর রামপ্রসাদ মাদরাসা, ফুলতল মাদরাসা, হারাতৈল মাদরাসা, দারুস সুন্নাহ ছাতারখাই কওমি মাদরাসা, ছাতারখাই দারুল ইসলাম মাদরাসা, রওজাতুল ইসলাম চাক্তা ক্বওমি মাদরাসা, এহইয়াউল উলূম মানিকপাড়া ঈদগাহ মাদরাসা, মহাইল মাদানিয়া ক্বওমি মাদরাসা,দারুস সুন্নাহ ভাইটগ্রাম মাদরাসা, দারুল কুরআন খাজার মোকাম মাদরাসা, সেনগ্রাম মহিলা,কাঞ্জর মাদানিয়া মাদরাসা, দরবস্ত জামেয়া ইসলামিয়া মাদরাসা, মাদানিয়া কিন্ডারগার্টেন বারইকান্দি, দরবস্ত ফাতিমাতুয যাহরা মহিলা মাদরাসা, দারুল আরকাম দরবস্ত মাদরাসা, তাহফিযুল কুরআন সরুফৌদ মাদরাসা, জামিয়া কুরআনিয়া সারিঘাট মাদরাসা, নূরে মদিনা শুকইনপুর-ফরফরা মাদরাসা, ডেমা জামিয়া ইসলামিয়া মাদরাসা, কামরুল ইসলাম মুহিউস সুন্নাহ বাগেরখাল মাদরাসা, মাঈনুল ইসলাম লামা-শ্যামপুর মাদরাসা, মিসবাহুল উলূম শ্যামপুর বাগেরখাল মাদরাসা, হরিপুর হাফিযিয়া মাদরাসা, জামিয়া রহমানিয়া ইসলামিয়া চিকনাগুল মাদরাসা,  চারিকাটা কুমারপাড়া আমতল জামে মসজিদ (পূর্ণ নির্মাণ), চারিকাটা ভিত্রিখেল জাদুবাড়ী জামে মসজিদ (পূর্ণ নির্মাণ), ভিত্রিখেল উত্তর বড়গোল জামে মসজিদ (পূর্ণ নির্মাণ)।

বিশেষ অনুদান রয়েছে দরবস্ত বাজার জামে মসজিদ, দরবস্ত পাকড়ী জামে মসজিদ, দরবস্ত ফান্দু জামে মসজিদ, দরবস্ত উত্তর জামে মসজিদ, শ্রীখেল জামে মসজিদ, করগ্রাম উত্তর রহিম হাজি মসজিদ, করগ্রাম পূর্ব জামে মসজিদ, কাঞ্জর জামে মসজিদ, কাঞ্জর পূর্ব জামে মসজিদ, মানিকপাড়া দক্ষিণ জামে মসজিদ, সরুফৌদ পাথরঘাটা জামে মসজিদ, বারইকান্দি জামে মসজিদ, সরুখেল জামে মসজিদ চারিকাটা, টাকুরেরমাটি জামে মসজিদ চিকনাগোল, সাতজনি জামে মসজিদ চিকনাগোল, শ্যামপুর দুবাই মসজিদ হরিপুর। ঈদগাহের উন্নয়নে অনুদান পেয়েছে দরবস্ত শাহী-ঈদগাহ, চিকনাগুল শাহী-ঈদগাহ, এছাড়্ও চিকনাগুল গোরস্তানের বাউন্ডারি নির্মাণে সহায়তা ও করগ্রাম উত্তর মহল্লা গোরস্তানের বাউন্ডারি নির্মাণে সহায়তা দিয়ে দানশীলতার এক উজ্জল দৃষ্ঠান্ত স্থাপন করেছেন তিনি।

আমেরিকা প্রবাসী রোটারিয়ান আলহাজ্ব আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু সমাজসেবায় অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন। যিনি ইতিমধ্যে শত পরিবারের হাজারো মানুষের হৃদয় জয় করেছেন। সেবামূলক কাজের মধ্য দিয়ে সমাজের সর্বস্তরের মানুষের ভালোবাসা অর্জন করেছেন। অন্যের ব্যথায় সমব্যথী হওয়া এবং পরের বিপদে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করা একটি মহৎ গুণ। সর্বোপরি জনগণের সেবা, কল্যাণ ও খেদমতে নিয়োজিত অনাড়ম্বর ও আত্মোৎসর্গী জীবনের অধিকারি তিনি৷যেকোনো সংকট ও দূর্যোগে সবার আগে অসহায় মানুষের মাঝে তিনি সহায়তা পৌছে দেন। বিগত বছরে শতাব্দীর ভয়াবহ সংকটকাল করোনাকালীন সময়ে এবং কয়েক মাস আগে ঘটে যাওয়া সিলেট অঞ্চলে প্রলয়ঙ্ককরি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এককভাবে বিপুল সহযোগিতা ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেছেন আবদুল গফফার চৌধুরী খসরু। তিনি ও তার পরিবার এলাকায় জনহিতকর সকল কাজের সঙ্গে স্বতঃস্ফূর্ত এবং নিঃস্বার্থভাবে জড়িত।

সাবেক  ছাত্রনেতা আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু শৈশব থেকেই ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী, উদ্যমী, পরিশ্রমি, মানবিক এবং পরোপোকারী। তিনি পাকড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণী , ১৯৭৮ সালে সেন্ট্রাল জৈন্তা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, ১৯৮০ সালে সিলেট এমসি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। এরপর এমসি কলেজে অনার্সে ভর্তি হয়ে চলে যান মুনসিগঞ্জ মেডিকেল কলেজে, সেখান থেকে ৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লমা ইন মেডিকেল এ্যাসিসটেন্ট কোর্স পাশ করেন ১৯৮৪ সালে। শিক্ষাজীবন সমাপ্ত করে সরকারি চাকুরিতে যোগদান করেন। জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৯৮৪ সাল থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত উপ সহকারি মেডিকেল অফিসার হিসেবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। পারিবারিক জীবনে বিবাহবন্ধের মাধ্যমে তিনি ৪ নং দরবস্ত ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আলহাজ্ব ইবরাহীম আলীর তৃতীয়া কন্যা মনোওয়ারা বেগমকে জীবনসঙ্গিনি হিসেবে গ্রহণ করে দুই পুত্র ও এক কন্যাসন্তানের জনক। তারা সকলেই আমেরিকার নাগরিক। রাজনীতি ও সামাজ সেবায় বহু সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েছেন। জৈন্তিয়া কেন্দ্রীয় ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং ১৯৮০ থেকে ৮৩ পর্যন্ত জৈন্তিয়া ছাত্র কল্যাণ পরিষদের সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। জৈন্তাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের অন্যতম পরিষ্ঠাতা সদস্য এবং ১৯৮১ থেকে ৮৩ পর্যন্ত সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন। ১৯৮৬ সালে জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা কনভেনার এবং ৮৬ থেকে ৮৮ পর্যন্ত সিলেট জেলা যুবলীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনসহ ১৯৯৬ সালে জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদকের দায়িতও আদায় করেন। রোটারি ক্লাব অব সেন্ট্রাল ব্রংক্স, রোটারি ইন্টারন্যাশনাল, নিউইয়র্ক, আমেরিকা এর চার্টার মেম্বার এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি। তিনি প্রতিষ্ঠাতা করেন ব্রংক্স বাংলাদেশ সোসাইটি, নিউয়র্ক, আমেরিকা। আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু বর্তমানে বাংলাদেশি আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের জেনারেল সেক্রেটারি এবং জৈন্তাপুর প্রবাসী গ্রুপের গ্রুপ-উপনেতার দায়িত্ব¡ পালন করছেন।

শাহিদ হাতিমী

ডিসেম্বর / ০৪ / ২০২২
০৯:০৫ অপরাহ্ন

আপডেট : ফেব্রুয়ারী / ০৩ / ২০২৩
০৫:৪২ পূর্বাহ্ন

প্রবাস